আলোচিত বাংলাদেশ

সহকর্মীকে মারধরের ঘটনায় সেই নির্বাহী প্রকৌশলী বরখাস্ত

সহকর্মীকে মারধরের ঘটনায় রাজবাড়ীর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। অসদাচরণ ও চাকরির শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বুধবার রাতে নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদকে বরখাস্ত করা হয়।

পাউবোর উপসচিব (প্রশাসন) সৈয়দ মাহবুবুল হক স্বাক্ষরিত চিঠিতে বরখাস্তের বিষয়টি জানানো হয়েছে। বোর্ডের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী আরিফুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। উপসহকারী প্রকৌশলী মো. রনি বুধবার মহাপরিচালক বরাবর

লিখিত অভিযোগে জানান, মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে নির্বাহী প্রকৌশলী তাকে ও আরেক উপসহকারী প্রকৌশলী ইকবাল সরদারকে প্রধান প্রকৌশলীর দপ্তরে গিয়ে কিছু প্রাক্কলন ও নোটশিটের কাজ করে আনতে বলেন।

এ কাজের জন্য নির্বাহী প্রকৌশলী অফিসের গাড়ি ব্যবহারের কথা বললেও তারা পাননি। ৫১টি প্রাক্কলন এবং ৬১টি নোটশিটের কাগজপত্রসহ বাসে যাওয়া ঝুঁকিপূর্ণ মনে হওয়ায় এবং পরদিন নির্বাহী প্রকৌশলীর ওই দপ্তরে এক সভায় যাওয়ার কথা থাকায়

তিনি ওই দিন গাড়িতে যাওয়ার চিন্তা করে আর যাননি।
তবে মঙ্গলবারই বিকেল ৪টা ৪৮ মিনিটে রাজবাড়ীর সহকারী প্রকৌশলী ফোন করে তাকে নির্বাহী প্রকৌশলীর সঙ্গে দেখা করতে বলেন। ৫টা ২০ মিনিটের দিকে আব্দুল আহাদের কক্ষে দেখা

করতে গেলে তিনি রনির সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। একপর্যায়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে চেয়ার থেকে ফেলে গলা টিপে ধরেন। বুধবার সন্ধ্যার দিকে এই ঘটনার ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরার ফুটেজ ফেসবুকে ভাইরাল হয়। সামাজিক যোগাযোগ

মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ উপসহকারী প্রকৌশলী মো. রনিকে কিছু বলছেন। মো. রনি সামনের চেয়ারেই বসা ছিলেন। একপর্যায়ে আব্দুল আহাদ তার চেয়ার থেকে উঠে গিয়ে মো. রনিকে ধাক্কা দিয়ে

ফেলে দেন ও তার বুকের ওপর উঠে বসেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজবাড়ী পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘রনি দীর্ঘদিন ধরে আমার কোনো কথা শুনছেন না। আর এ ঘটনাটি আমি রাগের মাথায় করে ফেলেছি, যা আমার করা একদম ঠিক হয়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close