শিক্ষাঈন

বাড়িতে বাবার লাশ রেখেই এসএসসি পরীক্ষা দিলো উদয়

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে বাবার লাশ বাড়িতে রেখে চোখে অশ্রু নিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় বসেছে উদয় শাহ নামের এক শিক্ষার্থী। গতকাল মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ স্ট্রোকে মৃত্যু হয় তার বাবার। মৃত্যুর শোকে নির্বাক হয়েই

পরীক্ষার কেন্দ্রে যায় ওই শিক্ষার্থী। কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের কুড়িখাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে,  মঙ্গলবার ভোরে উদয়ের বাবা স্ট্রোকে মারা যান। বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এদিন সকাল ৯টায় পরীক্ষায় বসে

সে। উদয় তাহেরা নুর হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের এসএসসি পরীক্ষার্থী। তার বাবা শাহ আজহারুল হক আনোয়ার (৪৯) উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের কুড়িখাই গ্রামের মৃত শাহ আব্দুল বাতেনের ছেলে নিহতের স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার উদয়ের

এসএসসির তৃতীয় দিনের রসায়ন পরীক্ষা ছিল। এর মধ্যে হঠাৎ তার বাবা নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর বাবাহারা উদয় ভেঙে পড়লেও সহপাঠী আর স্বজনদের উৎসাহে কটিয়াদী পাইলট গার্লস উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে যায় সে। সরেজমিন

গিয়ে দেখা যায়, উদয়ের বাবার মৃত্যুর খবরে পরীক্ষাকেন্দ্রে এক শোকের ছায়া নেমে আসে। এক হাতে চোখ মুছে অন্য হাতে খাতায় লিখতে দেখা গেছে উদয়কে। নিহতের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। তাহেরা নুর হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত

অধ্যক্ষ ইন্দ্রজিৎ কুমার সাহা জানান, পরীক্ষার্থী উদয়ের বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা অবগত আছি। সে সবার সঙ্গে তৃতীয় দিনের রসায়ন পরীক্ষা শেষ করেছে। আমরাও তাকে সান্ত্বনা ও উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দিতে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close