তথ্য ও প্রযুক্তি

স্বর্ণ কিনার আগে ট্রিক্স জানুন,আপনি ঠকবেন না,স্বর্ণের দাম বেড়েছে।

স্বর্ণ কিনার আগে ট্রিক্স জানুন,আপনি ঠকবেন না,স্বর্ণের দাম বেড়েছে।
ভিডিও দেখুন এখানে ক্লিক করুন

আরও পড়ুনঃ
অক্টোবরে আমিরাত-ভারত এয়ার ট্রাফিক বেড়েছে ১৩৬ শতাংশ
সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) সঙ্গে ভারতের আকাশপথে যোগাযোগ বাড়ছে। গত অক্টোবরে দুই দেশের মধ্যে এয়ার ট্রাফিক আগের মাসের তুলনায় ১৩৬ শতাংশ বেড়েছে।

ভ্রমন আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হয়ে যাচ্ছে। পরিষেবাদানকারী সংস্থাগুলোর সাম্প্রতিক ডাটা বিশ্লেষণ করে এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর অ্যারাবিয়ান বিজনেস। গত অক্টোবরে ভারতের বিভিন্ন শহর থেকে ইউএইতে আকাশপথে সফর আগস্টের তুলনায় ৬৩ শতাংশ বেড়েছে। ভারতসহ বিভিন্ন দেশের জন্য চলতি বছরের আগস্ট

থেকে ট্যুরিস্ট ভিসা দেয়া শুরু করেছিল উপসাগরীয় দেশটি। তখন থেকেই ইউএই-ভারতের মধ্যে এয়ার ট্রাফিক লক্ষণীয়ভাবে বেড়েছে।
শিল্পসংশ্লিষ্টরা বলছেন, মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে ভারতের আকাশ যোগাযোগের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় এটা স্পষ্ট যে, সামনের মাসগুলোতে এয়ার ট্রাফিক আরো বাড়বে। ইউএই

ও ভারতের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় এয়ার বাবল ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিমান যোগাযোগ চলছে। এতে উড়োজাহাজের আসন ভাড়া বেড়েছে। ভ্রমণ পরিষেবাদানকারী সংস্থা ক্লিয়ারট্রিপের মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক প্রধান অতিশ থাপা অ্যারাবিয়ান বিজনেসকে জানান, আগাম টিকিট ক্রয়ের উপাত্তে দেখা গেছে,

এক মাস আগে টিকিট বুকিংয়ের হার বেড়েছে ৩০ শতাংশ। ভ্রমণের আটদিনের মধ্যে বুকিংয়ের হার ৩১ শতাংশ কমেছে। ভারতের চলমান উৎসব মৌসুম, উভয় দেশে বিভিন্ন মেলা ও প্রদর্শনী এবং বছর শেষের ভ্রমণ বৃদ্ধিতে দুই দেশের মধ্যে এয়ার ট্রাফিক বেড়েছে। থাপা বলেন, ইউএইতে থাকা অনেক ভারতীয়

পরিবার-পরিজনের জন্য দেখা করতে স্বদেশে বেড়াতে আসছেন। ভ্রমণ পরিষেবাদানকারী সংস্থার জ্যেষ্ঠ নির্বাহীরা বলছেন, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে আকাশপথে ভ্রমণের চাহিদা বেড়েছে। ইউএইতে সম্প্রতি দুটি বড় ক্রিকেট ইভেন্ট আয়োজন হয়েছে। দি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) এবং চলমান টি২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেট (পুরুষ)। তার সঙ্গে চলছে দুবাই এক্সপো ২০২০। এতে ভারত থেকে

উপসাগরীয় দেশটিতে ভ্রমণের চাহিদা বেড়েছে। অক্টোবরে ভারত থেকে সর্বোচ্চ ভ্রমণ হওয়া শহরগুলোর শীর্ষ পাঁচটি হচ্ছে; মুম্বাই, কচি, কজিকোদে, দিল্লি ও হায়দরাবাদ। অক্টোবরে বিমান ভাড়া লক্ষণীয়ভাবে বেড়েছে। গত সেপ্টেম্বরে ইউএই থেকে ভারতে গড় বিমান ভাড়া ছিল ৪৫০ দিরহাম, সেখানে অক্টোবরে তা ৬০০ দিরহামে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে ভারত থেকে ইউএইতে বিমান ভাড়া সেপ্টেম্বরের ১ হাজার দিরহাম থেকে কমে ৯২০ দিরহামে

দাঁড়িয়েছে। ক্লিয়ারট্রিপের উপাত্তে দেখা গেছে, ইউএইর পাশাপাশি জিসিসিভুক্ত অন্য দেশগুলোর সঙ্গেও অক্টোবরে ভারতের এয়ার ট্রাফিক বেড়েছে। সৌদি আরব থেকে ভারতে ফ্লাইট ৩০ শতাংশ বেড়েছে। অন্যদিকে ভারত থেকে সৌদি আরবে এয়ার ট্রাফিক ১৮ শতাংশ বেড়েছে। জিসিসিভুক্ত অন্য দেশগুলোর সঙ্গে এয়ার ট্রাফিক আগস্টের তুলনায় ৪২ শতাংশ বেড়েছে। গত দুই মাসে

জিসিসিভুক্ত দেশগুলো থেকে ভারতে ভ্রমণ ১০৮ শতাংশ বেড়েছে। আগস্টে জিসিসি থেকে ভারতে বিমান ভাড়া যেখানে ছিল ৫২৩ দিরহাম, তা অক্টোবরে কিছুটা বেড়ে ৫৭৫ দিরহামে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে অক্টোবরে ভারত থেকে জিসিসিভুক্ত দেশগুলোতে বিমান ভাড়া ৫ শতাংশ বেড়ে ৭৪৭ দিরহামে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close