শিক্ষাঈন

বিশ্ব বড় বড় নেতাদের ‘কারাবন্দি’ করল ঢাকার শিশুরা

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে মাথা ঘামা’চ্ছেন না কেউ। আর তাতে’ই ক্ষেপে উঠেছে নতুন প্রজন্ম। বিশ্বের বড় বড় রাষ্ট্রনেতা’দের করা হলো প্রতীকী কারাবন্দি। শিশুরা বলছে, জলবায়ু প’রিবর্তনের ধরিত্রী’র ক্ষতি হচ্ছে।

এ ক্ষতি ঠেকাতে বিশ্বনে’তারা উদ্যোগ না নিলে তা’দের কারাগারেই আটকে রাখা হ’বে। বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লা’বের সামনে এমন অভি’নব প্রতিবাদ কর্মসূচির দেখা মিলেছে। জল’বায়ু বিপর্যয় রোধে ব্যর্থ’তার দায়ে ‘বিশ্ব নেতাদের খাঁচায় বন্দী করো’

শীর্ষ’ক এই কর্মসূচির আয়ো’জন করে ‘স্টপ এমিশনস নাও বাংলা’দেশ’ নামে একটি সংগঠন। প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া ঢাকা আইডি’য়াল ক্যাডেট স্কুলের পঞ্চম শ্রে’ণীর শিক্ষার্থী শামীমা রহমান বন্দী বিশ্বনেতাদের দি’কে আঙুল তুলে বলেন, এরা হলেন বিশ্বে’র বড় বড় নেতা। জলবায়ু নিয়ে তাদের কোনো

মাথাব্য’থা নেই। এরপরও তা’রা যদি পদক্ষেপ না নেন, তাহলে আমরা সারা জীব’নের জন্য তাদের জেলে রাখতে বা’ধ্য হবো। চাবি কিন্তু আমাদের হাতে! প্রতিবাদ কর্মসূ’চি থেকে বলা হয়, জলবায়ু বিপর্যয়ের কারণে প্রকৃতি চরম ও অস’হিষ্ণু হয়ে উঠেছে।

এ বিপর্যয়ে সব’চেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশের ম’তো প্রান্তিক দেশ’গুলো। দে’শের এক কোটি ৯০ লাখের মতো শিশু সব’চেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়ে’ছে। অথচ জলবায়ু বিপর্যয় ও বৈশ্বিক উন্নয়নের লা’গাম কিছু’তেই টেনে ধরা যা’চ্ছে না শিল্পোন্নত গণতান্ত্রিক

দেশগু’লোর সদিচ্ছা না থাকা’য়। প্রতীকী এ কর্মসূচিতে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে বানানো হয় বন্দি’শালা। তাতে মুখোশ পরিয়ে প্রতিকী’ভাবে আটকে রাখা হয় বিশ্ব নেতা’দের।
কর্মসূচিতে এমিশনস নাও বাংলাদেশের সদ’স্য সচিব মঞ্জুরুল

হাসান বলে’ন, জলবায়ু বিপর্যয়ের অন্য’তম কারণ হচ্ছে জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বৃদ্ধি। কার্বন নিঃসরণ কমানোর ক্ষে’ত্রে বিশ্বনেতারা কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বারবার ব্যর্থতার প’রিচয় দিচ্ছে। প্রাণ-প্রকৃতির অস্তিত্ব যখন বিনাশের পথে তখন কার্যকর পদক্ষেপ নিতে’ তারা এখনও সিদ্ধান্ত’হীন’তায় ভুগছে।

ফলে বাংলাদেশের মতো উপকূলীয় দেশগুলোর জন্য এ বিপর্যয় ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। সংগঠনের সদস্য সামিউল হা’সান বলেন, শিল্পোন্নত দুনিয়া বিশেষ করে জি-টোয়েন্টি দেশগুলোর লাগা’মহীন কার্বন নিঃসরণ এবং মাত্রাতিরিক্ত জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার এই অব’স্থার জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ী। জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬

অনু’ষ্ঠিত হলেও শুধুমাত্র আলোচনা ছাড়া জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার ব’ন্ধে আর কোনো পদ’ক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না। এ উদাসীনতা ও ব্যর্থতার প্রতি’বাদে তরুণ প্রজন্ম বিশ্ব নেতাদের প্রতীকী খাঁচায় বন্দী করে প্রতিবাদ জানাচ্ছে। প্রতিবাদ কর্মসূ’চিতে অংশ নেন ঢাকা আই’ডিয়াল ক্যা’ডেট স্কুলের শিক্ষার্থী ও স্টপ এমিশনস নাও বাংলাদেশের সদস্যরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close