ব্রেকিং নিউজ

পিরোজপুরে যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর মামলার সাক্ষীর ওপর হামলা

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধে আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত
জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে মামলার
সাক্ষী জলিল শেখের ওপর হামলা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় পিরোজপুর জেলার

ইন্দুরকানী উপজেলার পাড়েরহাট বন্দর বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ হামলাকারী জাহিদুল ইসলামকে আটক করেছে। আহতবস্থায় সাক্ষী জলিল শেখকে পুলিশ উদ্ধার করে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সাক্ষী

জলিল শেখ পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নের চিথলিয়া গ্রামের মাজেদ শেখের ছেলে। আটককৃত জাহিদুল ইসলাম হাওলাদার খুলনা জেলার রামনগর এলাকার সিদ্দিক হাওলাদারের ছেলে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জলিল শেখ জানান, পাড়েরহাট

বন্দর বাজারে তিনি ইলেক্টনিক্স এর বিভিন্ন যন্ত্রাংশ মেরামত করেন। কয়েকদিন আগে স্থানীয় একজন একটি আইপিএস তার কাছে মেরামত করার জন্য দিয়ে যায়। কিন্তু যে ব্যক্তি মেরামতের জন্য দিয়ে যায় তিনি এটা না নিতে এসে অপরিচিত একজন এসে সেই

আইপিএসটি নিতে চাইলে তিনি সেটা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। এ বিষয়ে নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ব্যক্তি তার ওপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয়রা ও পুলিশ এগিয়ে এসে হামলাকারীকে আটক করে এবং তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পিরোজপুর জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. তন্ময়

মজুমদার জানান, আহত ব্যক্তির পিঠের দিকে আঘাতের চিহ্ন আছে। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির জানান, সাক্ষী জলিল শেখের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে এক ব্যক্তির সঙ্গে হাতহাতির ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এ ঘটনায় সঙ্গে জড়িত জাহিদুল নামে সেই ব্যক্তিকে আটক

করে থানায় নিয়ে আসে। পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, যুদ্ধাপরাধী মামলার সাক্ষী জলিল শেখের নিরাপত্তার জন্য থাকা পুলিশই তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে এসেছে এবং হামলাকারী ব্যক্তিকে আটক করেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close