খেলাধুলা

অন্য পেশা ছেড়ে বিখ্যাত হয়েছেন এই ৫ ক্রিকেট তারকা

কেবল ভারত নয়, সারা বিশ্বে জনপ্রিয় ক্রিকেট। ফলস্বরূপ, ক্রিকেটাররা প্রচুর ভালোবাসা পেয়ে থাকেন। তবে একজন খেলোয়াড়ের পক্ষে জাতীয় দলের হয়ে খেলা অত সহজ নয়। বর্তমানে প্রতিযোগিতা

এতটাই বেড়ে উঠেছে যে কঠোর পরিশ্রম ও ভাগ্য উভয়ের ভিত্তিতে ক্রিকেটাররা সুযোগ পেয়ে থাকেন। তবে কয়েকজন ক্রিকেটার রয়েছেন যারা এর আগে অন্য পেশায় যুক্ত ছিলেন। তবে তাদের অদম্য জেদ এবং খেলার প্রতি আবেগের কারণে সমস্ত বাধা বিপত্তি দূর করে ক্রিকেটার হয়েছেন। আজকের প্রতিবেদন রয়েছে,

সেই পাঁচ সফল খেলোয়াড় যারা অন্য পেশা ছেড়ে বিখ্যাত ক্রিকেটার হয়েছেন। এবার চলুন তাদের সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক ৫) নাথন লিওন: (গ্রাউন্ডস্টাফ)-: অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের স্পিন বোলার নাথন লিওন আজ বিশ্ব ক্রিকেটে সেরা স্পিন বোলার হিসাবে পরিচিত। আসলে তিনি শুরু থেকেই ক্রিকেটের

সাথেই জড়িত। তবে ক্রিকেটার হওয়ার আগে অ্যাডিলেডের একটি মাঠে গ্রাউন্ডস্টাফ ছিলেন যে কারণে পিচ সম্পর্কে তার যথেষ্ট অভিজ্ঞ রয়েছে। নাথন লিওনের দুর্দান্ত স্পিন বোলিং সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে এবং তিনি অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সদস্য হয়ে ওঠেন। ৪) মিচেল জনসন: (ট্রাক ড্রাইভার)-: অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের ইতিহাসে সেরা বাঁহাতি ফাস্ট বোলার হিসেবে মিচেল

জনসন বিবেচিত। তবে তিনি শৈশবের দিনগুলিতে আর্থিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েন। ক্লাব ক্রিকেটের পাশাপাশি নদীর গভীরতানির্ণয় এর জন্য বিভিন্ন সরঞ্জাম পৌঁছে দিতে ট্রাক চালকের কাজ করেছিলেন। তবে তিনি তার কঠোর পরিশ্রম এবং অদম্য প্রচেষ্টাকে কখনোই দমিয়ে রাখেনি। এরপর তার বোলিং পারফরম্যান্স অস্ট্রেলিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ হয় এবং তিনি জাতীয় দলে সুযোগ

পেয়ে বাজিমাত করেন। ৩) শেন বন্ড: (পুলিশ অফিসার)-: ক্রিকেটার হওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শেন বন্ডও অন্য পেশার সাথে যুক্ত ছিলেন। এই দ্রুতগতির বোলারের কেরিয়ার চোট-আঘাতে পরিপূর্ণ ছিল। তবে আপনি কি জানেন এই কিউই বোলার ক্রিকেটার হওয়ার আগে একজন পুলিশ অফিসার ছিলেন। পরিসংখ্যানের কথা বললে, তিনি ১৮ টেস্টে ৮৭ উইকেট এবং ৮২ ওয়ানডে ম্যাচে ১৪৭ উইকেট নিয়েছিলেন।

২) শেলডন কট্রিল: (সেনাকর্মী)-: ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বামহাতি ফাস্ট বোলার শেলডন কট্রিলও এই তালিকায় যুক্ত হয়েছেন। খুবই অল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয় হওয়া ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনি একজন। তিনি পেশায় সেনাকর্মী ছিলেন। জামাইকান প্রতিরক্ষা বাহিনীর একজন সদস্য হওয়ায় বাহিনীর প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনেই তিনি উইকেট নেওয়ার পর ওই মিলিটারি স্টাইলে স্যালুট করেন।

১) মহেন্দ্র সিং ধোনি: (টিকিট কালেক্টর)-: মহেন্দ্র সিং ধোনি অধিনায়ক হিসেবে ভারতের হয়ে তিনটি আইসিসি ট্রফি জিতেছিলেন। তার ক্রিকেটার হয়ে ওঠার পেছনে যে গল্পটি রয়েছে তা “এম এস ধোনি – দ্য আনটোল্ড স্টোরি” মুভিতে প্রায় সকলেই দেখেছেন। ২০০৪ সালে মাহি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক করেন। কিন্তু তার আগে দুই বছর খড়গপুরের রেলস্টেশনে টিকিট কালেক্টর পদে ছিলেন। তবে ক্রিকেটের প্রতি আবেগ থাকার কারণে এই পেশা ছেড়ে দেন। তখন কে বা জানতো এই লম্বা চুলের ছেলেটি একদিন সারা বিশ্ব জয় করবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close