ব্রেকিং নিউজ

হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি করতে গিয়ে ধরা তরুণী

লক্ষ্মীপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে তিন দিনের নবজাতক চুরি করে নেওয়ার সময় রিমা আক্তার নামে এক তরুণীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নোভা ট্রমা

সেন্টার অ্যান্ড জেনারেল হসপিটালের সামনে থেকে তাকে আটক করে পুলিশে দেন হাসপাতালের স্টাফরা। আটক রিমা সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের পোদ্দারবাজার এলাকার ইতালি প্রবাসী সফিকুর রহমানের স্ত্রী। নবজাতকের বাবা সদর উপজেলার

দালাল বাজার ইউনিয়নের পশ্চিম লক্ষ্মীপুর এলাকার ব্যবসায়ী মো. সুমন। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সিজারের মাধ্যমে সাবিনা আক্তার ওই ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। সদর হাসপাতালের গাইনি চিকিৎসক নার্গিস পারভিন ওই প্রসূতির সিজার করেন।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রিমা নামের ওই নারী কেবিনে ঢুকে শিশুর মা সাবিনাকে বলেন, বাচ্চার অবস্থা ভালো নয়। চিকিৎসক নার্গিস পারভিন বাচ্চাটিকে দেখতে চেয়েছেন। এ বলেই সাবিনার কোল থেকে বাচ্চাকে নিয়ে রিমা কেবিন থেকে বের হয়ে

যান। পরে ২-৩ মিনিট হাসপাতালের অভ্যর্থনা কক্ষে রিমা বসেছিলেন। তার পেছনে বাচ্চার নানিও আসেন। হঠাৎ বাচ্চাকে নিয়ে রিমা দ্রুত হেঁটে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় উঠতে যাচ্ছিলেন। এ সময় নানির চিৎকারে

তাৎক্ষণিক হাসপাতালের লোকজন এসে বাচ্চাসহ রিমাকে আটক করে পুলিশে খবর দেন। জানতে চাইলে মো. সুমন বলেন, শুক্রবার প্রসব ব্যথা উঠলে আমার স্ত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করি। পরে সিজারের মাধ্যমে দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম হয়। আমার সন্তানকে

চুরি করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা শুনে গা শিওরে উঠেছে। রিমার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের শাস্তি দাবি জানাচ্ছি। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিমতানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। হাসপাতালের সিসিটিভির

ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করেছি। একইসঙ্গে বাচ্চার মা-বাবা ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। রিমাকে আটক করে সদর থানায় পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close