আন্তর্জাতিক

স্বরাষ্ট্র ও অর্থমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করল তালেবান

কাবুল দখলের নবম দিনে সরকার গঠনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছে তালেবান। তবে সেটা গতানুগতিক ধারায় নয়। সবার আগে ঘোষণা করা হয়েছে অর্থমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নাম সাধারণত কোনো সরকার গঠনের ক্ষেত্রে সবার

আগে ঘোষণা করা হয় সরকার প্রধানের নাম। তালেবান তা করেনি। ফলে তালেবান সরকারের প্রধান কে হচ্ছেন এ নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। আফগানিস্তানের সংবাদ সংস্থা পাজহোকের বরাতে মঙ্গলবার ​বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, তালেবান

সরকারের অর্থমন্ত্রী হচ্ছেন গুল আগা। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হতে যাচ্ছেন সাদর ইব্রাহিম। সেই সঙ্গে গোয়েন্দা প্রধানের নামও ঘোষণা করেছে তালেবান। এই পদে বসানো হচ্ছে নাজিবুল্লাহকে। আর কাবুলের গভর্নরের দায়িত্ব পাচ্ছেন মোল্লা শিরিন। রাজধানীর মেয়র হতে যাচ্ছেন হামদুল্লাহ নোমানি।

এদিকে তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ পাকিস্তানি এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন গভর্নর হিসেবে হাজি মোহাম্মদ ইদ্রিসকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তালেবান কাবুলে ঢোকার পর গভর্নর দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। আফগানিস্তানে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া চলছে জোরেশোরে। সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই ও ‘হাই কাউন্সিল ফর ন্যাশনাল

রিকনসিলিয়েশন’র চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ কাবুলে দফায় দফায় তালেবানের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছেন।
গত শনিবার তালেবান নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে আবদুল্লাহর কার্যালয় জানায়, ‘উভয়পক্ষ দেশের বর্তমান নিরাপত্তা ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং আফগানিস্তানের ভবিষ্যতের জন্য একটি অংশগ্রহণমূলক রাজনৈতিক সমঝোতা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন।’
তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর কারজাই এবং

আবদুল্লাহ কাবুলে তালেবান নেতৃত্বের বেশিরভাগ নেতার সঙ্গে বৈঠক করে অংশগ্রহণমূলক সরকার নিয়ে আলোচনা করেছেন। কিন্তু এসব বৈঠকের বিষয়ে গণমাধ্যমকে বিস্তারিত জানানো হয়নি।
রয়টার্সকে এক জ্যেষ্ঠ তালেবান নেতা বলেন, নতুন সরকার কেমন হবে সেপ্টেম্বরের মধ্যে সেই ঘোষণা দেওয়া হবে। ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ৩১ আগস্ট মার্কিনসহ সব বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের সময়সীমা শেষ হওয়ার অপেক্ষায় আছে তালেবান। সূত্রের বরাতে

আফগান গণমাধ্যম টোলো নিউজ জানিয়েছে, তালেবান এবং অন্যান্য আফগান রাজনৈতিক নেতা নতুন সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা অব্যাহত রেখেছেন। তবে সরকার গঠনের প্রধান যে ইস্যু সেটি নিয়ে এখনো কোনো আলোচনা হয়নি।

এদিকে আফগানিস্তানে নতুন সরকার গঠনের জন্য আলোচনা করতে শনিবার কাবুলে পৌঁছেছেন তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও রাজনৈতিক প্রধান মোল্লাহ বারাদার। ধারণা করা হচ্ছে, তিনিই হতে যাচ্ছেন আফগানিস্তানের নতুন সরকারের প্রধান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close