সারা বাংলাদেশ

তালেবানের আহ্বানে কিছু বাংলাদেশি ‘হিজরতে’ গেছেন : ডিএমপি কমিশনার

আফগানিস্তানের সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের আহ্বানে কিছু বাংলাদেশি ঘর ছেড়ে ‘হিজরতে’ বেরিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের

৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখতে এসে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে শনিবার (১৪ আগস্ট) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার এ কথা বলেন। শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বিশ্ব এখন সাইবার ওয়ার্ল্ড এর মধ্যে বন্দি।

নিজেদের বাড়ি ঘর থেকে শুরু করে অফিস-আদালতে মিটিং করছি বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করে। জঙ্গিরাও কিন্তু বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করে তাদের মানুষের রিক্রুট করছে। সম্প্রতি আফগানিস্তানের যুদ্ধে যাওয়ার জন্য একটি আহ্বান জানানো হয়েছে তালেবানের পক্ষ থেকে। বাংলাদেশের কিছু মানুষ অলরেডি

তালেবানের সঙ্গে যুদ্ধে যোগ দেওয়ার জন্য হিজরত করেছে। আমরা ধারণা করছি, কিছু মানুষ ভারতে ধরা পড়েছে, আর কিছু মানুষ পায়ে হেঁটে বিভিন্নভাবে আফগানিস্তানে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।’ তিনি বলেন,। সাইবার ওয়ার্ল্ডয়ে শুধু আমরা না, বিভিন্ন সংস্থা তাদের কার্যক্রমের মনিটর করে। যখনই সন্দেহজনক কোনও

কিছু পাওয়া যায়, তখনই আমাদের অবহিত করে।। সরকারের সবাই তৎপর রয়েছে।’ শফিকুল ইসলাম বলেন, জঙ্গিরা থেমে নেই। বাংলাদেশে যাতে আর একটিও জঙ্গি হামলার ঘটনা না ঘটে সে ব্যাপারে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘গত পরশুদিন আমরা জঙ্গি সংগঠনের একজন লিডিং সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছি। তিনি বোমা বিশেষজ্ঞ, অনলাইনে তিনি বোমা

তৈরির প্রশিক্ষণ দিতেন। নারায়ণগঞ্জের যে শক্তিশালী বোমা উদ্ধার হয়েছে সেটাও সরাসরি তার তত্ত্বাবধানে তৈরি করা হয়।
‘এই মাসে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জঙ্গি বা নাশকতাকারী গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা যে থেমে নেই এতটুকু বলা যায়, তবে আমরা আমাদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে চেষ্টা করে যাচ্ছি, যাতে বাংলাদেশ

আরেকটি ঘটনাও না ঘটে।’ বর্তমানে তৎপর জঙ্গিরা ছোট ঘটনা ঘটিয়ে বিদেশি মিডিয়ায় আসতে চায়। সে জন্য তারা ১৫ আগস্টের মতো ইভেন্টকে বেছে নিতে পারে। তবে যারা এই তৎপরতা চালাচ্ছিল তাদের পুরো গ্রুপটি ধরা পড়েছে বলে দাবি করেন শফিকুল ইসলাম।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close