বিনোদন ও লাইফ স্টাইল

পরীমণির মুক্তি চান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক

চিত্রনায়িকা পরীমণিসহ গ্রেপ্তারকৃত সব শিল্পীর মুক্তির দাবি জানিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক ও মুখপাত্র অধ্যাপক আ. ক. ম. জামাল উদ্দীন তাঁর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম

ফেসবুক পেজে এ মুক্তির দাবি জানিয়ে একটি পোস্ট দেন। আ. ক. ম. জামাল উদ্দীন তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেন, ‘চিত্রনায়িকা পরী মণিসহ গ্রেপ্তারকৃত সব শিল্পী কলাকৌশলীর অবিলম্বে মুক্তি দিন। স্ট্যান্ড ফর পরীমণি।’

একইদিন রাতে আরেক পোস্টে আ. ক. ম. জামাল উদ্দীন লিখেছেন, ‘র‌্যাব কেন সৃষ্টি হয়েছিল? পরীমনির মত অবলা নারীকে ধরতে কি র‌্যাব লাগে? মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমি আপনাকে জিজ্ঞেস করতে চাই। যদি র‌্যাব এর কাজ এত নীচে হয়, তাহলে এই র‌্যাব আমাদের দরকার নেই।’ ‘মাননীয়

প্রধানমন্ত্রী আপনি একজন নারী। পরীমনির মত একজন নারীকে ৪/৫ দিন পর্যন্ত রিমান্ডে নিয়ে তার পরিধেয় পোশাক পর্যন্ত পরিবর্তন করতে দেয়া হয়নি, এটা কি ধরনের বর্বরতা, অসভ্যতা? এটা দেশের সমগ্র নারী সমাজের জন্য চরম লজ্জ্বার। এসব বন্ধ করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।’ এদিকে পরীমণির মুক্তির দাবিতে

স্ট্যাটাস দেওয়া নিয়ে জানতে চাইলে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগেরে এই অধ্যাপক সাংবাদিকদের বলেন, যাদের ধরা হয়েছে তারা নামিদামি তারকা। তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে পুলিশ আদালতে মামলা করবে। তারা কোর্টে যাবে, কথা বলবে। কিন্তু, তাদেরকে এভাবে

রাত দিন এক করে ধরা, এটা কোন সভ্যতার মধ্যে পড়ে?
তিনি বলেন, দেশে হাজার হাজার তিন কোটি টাকা দামের গাড়ি আছে। তারা কিভাবে কিনছেন? তাদের আয়ের উৎস কী? তাদের ধরছেন না কেন? প্রসঙ্গত, আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি গত ৪

আগস্ট রাজধানী বনানীর বাসা থেকে র‌্যারের হাতে গ্রেপ্তার হন। পরে তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণে আইনে মামলা করা হয়। এরপর প্রথমে চারদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয় পরীমনিকে। এই রিমান্ড শেষে আবার দুই দিনের রিমান্ডে আছেন তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close