সারা বাংলাদেশ

অবশেষে বন্ধ হচ্ছে বেসরকারি কলেজে অনার্স-মাস্টার্স

আত্মকর্মসংস্থান বৃদ্ধি ও উদ্যোক্তা তৈরিতে বেসরকারি কলেজগুলোতে শুরু হচ্ছে বিভিন্ন শর্টকোর্স ও কর্মমুখী ডিপ্লোমা। আর এতে বন্ধ হবে কলেজগুলোর অনার্স-মাস্টার্স পর্যায়ের শিক্ষা। সরকারের এমন সিদ্ধান্তের

কথা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বুধবার (২৬ মে) ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি সরকারের এই পরিকল্পনার কথা জানান। দীপু মনি বলেন, ‘বেসরকারি কলেজ পর্যায়ে আমর’া সিদ্ধান্ত নিয়েছি, পর্যায়ক্রমে

এই অনার্স-মাস্টার্স বন্ধ করে দিয়ে সেখানে ডিগ্রি স্তরে শিক্ষার্থীরা পড়াশুনা করবেন, ডিগ্রি পরীক্ষা দেবেন।’ জনসংখ্যাকে দক্ষ জনসম্পদে রূপান্তরিত করতেই এ পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী। মন্ত্রী জানান, সব কলেজে অনার্স-মাস্টার্সের

তেমন কোনো প্রয়োজন নেই। এতে করে অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষিত বেকার তৈরি হচ্ছে। তিনি বলেন, সরকার শিক্ষিত বেকার তৈরি করতে চায় না। আমর’া জনসংখ্যাকে দক্ষ জনসম্পদে রূপ দিতে চাই। এ লক্ষ্যে উপযুক্ত শিক্ষা সম্প্রসারণের একটি প্রয়াস এটি।

তবে এখনই কলেজগুলোতে অনার্স-মাস্টার্স বন্ধ হচ্ছে না বলেও জানান তিনি।
দীপু মনি বলেন, এই কাজটি একদিনে হঠাৎ করে বন্ধ করে দিয়ে করা যাব’ে না। সেজন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে আমর’া কাজ শুরু করেছি। ইতোমধ্যে কমিটি করে দেওয়া হয়েছে। তারা

পুরো বিষয়টি দেখছেন। আর বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এই সিদ্ধান্তগুলো নিতে হবে।
যারা এখন অনার্স-মাস্টার্সে ভর্তি হচ্ছেন, তাদের আশ্বস্ত করে দীপু মনি বলেন, তাদের শিক্ষাজীবন

শেষ না হওয়া পর্যন্ত অ’পেক্ষা করা হবে। মন্ত্রী বলেন, শতবর্ষী ১৩টি কলেজে আছে, বেশ কিছু ভালো কলেজ আছে, যেখানে সকল ধরনের উপযুক্ত ব্যবস্থা আছে, সেগুলোতে অনার্স-মার্স্টার্স চলতে পারে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close