শিক্ষাঈন

মাদ্রাসার লাইব্রেরিয়ানরা শিক্ষক মর্যাদা পেলেন

স্কুল-কলেজের পর এবার মাদ্রাসার লাইব্রেরিয়ান ও সহকারী লাইব্রেরিয়ানরাও শিক্ষকের মর্যাদা পেলেন। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষকে

(এনটিআরসিএ) এসব পদে নিয়োগের জন্য প্রার্থী বাছাইয়ের দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে দাখিল মাদ্রাসায় নিয়োগ পাওয়া সহকারী লাইব্রেরিয়ান-ক্যাটালগার পদের নাম হবে গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞান

বিষয়ের সহকারী শিক্ষক ও আলিম মাদ্রাসার লাইব্রেরিয়ান পদের নাম গ্রন্থাগার প্রভাষক হচ্ছে। রবিবার (২৫ জুলাই) মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতর থেকে আদেশটি সব মাদ্রাসায় পাঠানো হয়েছে।

গত ১৮ জুলাই এই আদেশ জারি করা হয়। আদেশে বলা হয়, বেসরকারি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮ (২৩ নভেম্বর, ২০২০ পর্যন্ত সংশোধিত)

নীতিমালায় আগের সহকারী গ্রন্থাগারিক পদটি ‘সহকারী শিক্ষক’ এবং পূর্বের গ্রন্থাগারিক পদটি ‘গ্রন্থাগার প্রভাষক’ পদ হিসেবে বিবেচিত হবে। এই পদ দুটিতে এনটিআরসিএর মাধ্যমে নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ ও উত্তীর্ণদের সনদ প্রদানসহ যথাযথ প্রক্রিয়া

অনুসরণপূর্বক স্ব স্ব অধিদফতরের চাহিদার অনুকূলে নিয়োগ সুপারিশ করতে হবে। এ আদেশ জারির আগে অর্থাৎ ১৮ জুলাইয়ের আগে বিধিমোতাবেক যাদের নিয়োগ ফল প্রকাশ করে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে তারা যথাযথ প্রক্রিয়ায় আগের নিয়মে

এমপিওভুক্ত হতে পারবেন বলে জানিয়েছে অধিদফতর। এ আদেশ জারির পর এসব পদে ম্যানেজিং কমিটি বা গভর্নিং বডির মাধ্যমে নিয়োগ দেয়া হলে তা অবৈধ নিয়োগ বলে বিবেচিত হবে এবং তারা কোনোভাবেই এমপিওভুক্তির আওতায় আসবে না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close