রাজনীতি

শেখ হাসিনার আম উপহারে মমতার চিঠি, কটাক্ষ রাজ্য বিজেপির

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উপহার হিসাবে সুস্বাদু হাড়িভাঙ্গা আম পাঠিয়েছিলেন। একইভাবে তিনি আম উপহার পাঠান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

এবং ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে। শেখ হাসিনার উপহারের পালটা উপহার হিসাবে ত্রিপুরার বিজেপি নেতৃত্বাধীন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আনারস পাঠান। পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি চিঠি পাঠান। এই চিঠি পাঠানোর বিষয়টি নিয়ে মমতাকে তীব্র কটাক্ষ করলেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুকে এক পোস্ট লিখেছেন, বাংলাদেশের

প্রধানমন্ত্রীর থেকে আম উপহার পেয়ে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব আনারস পাঠিয়ে দেন বাংলাদেশে। আম অবশ্য আমাদের মাননীয়াও (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) পেয়েছিলেন। কিন্ত তিনি একটা চিঠি পাঠিয়েই কর্তব্য শেষ করলেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে,

দিলীপ ঘোষ বাংলার সংস্কৃতি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে গর্ব করেন, সেখানে দাঁড়িয়ে প্রতিবেশী দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আম উপহার পাঠানোর পরিবর্তে শুধু চিঠি পাঠানোকে কটাক্ষ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঠুকতেও ছাড়লেন না। একইসঙ্গে দিলীপ

ঘোষ পশ্চিমবঙ্গে জঙ্গিদের বাড়বাড়ন্ত নিয়েও মমতা সরকারকে আক্রমণ করেন। পশ্চিমবঙ্গ জঙ্গিদের কাছে দিদির বাড়ি। এভাবেই এবারে রাজ্যের মমতা সরকারকে নিশানা করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নিজের ফেসবুক পোষ্টে তিনি সরাসরি

বাংলাকে দিদির বাড়ি বলে উল্লেখ করে লিখেছেন দিদির বাড়ি জঙ্গিদের সেফ হোম। সারা ভারতবর্ষ থেকে জঙ্গিরা তাড়া খেলে এখানেই এসে আশ্রয় নেয়। মণিপুর, পাঞ্জাব থেকেও জঙ্গিরা তাড়া খেলে এখানে চলে আসে। দিদিমণি ভালো সেন্টার। জঙ্গিদের

কোনও অসুবিধা হলেই দিদির বাড়ি আছে। স্বাভাবিকভাবেই এই পোষ্টের মাধ্যমে বাংলায় জঙ্গিবাদকে নিশানা করে মমতা সরকারকে আক্রমণের মুখে তুলে আনলেন দিলীপ ঘোষ। সম্প্রতি কলকাতায় স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্সের হাতে বাংলাদেশের তিন জেএমবি জঙ্গি গ্রেফতার হওয়ার পর হাড়হিম করা নানা তথ্য সামনে চলে এসেছে। বিষয়টি নিয়ে রাজ্যের মানুষের কপালে রীতিমতো চিন্তার ভাঁজ

উঠেছে। সেখানে দাঁড়িয়ে দিলীপ ঘোষের এই পোষ্ট রীতিমতো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মমতা সরকারকে বিড়ম্বনায় ফেলার জন্য যে যথেষ্ট তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এর আগেও রাজ্যে বারবার জঙ্গি কার্যকলাপের ঘটনা সামনে এসেছে। বিশেষ করে বর্ধমানের খাগড়াগড়ে বিস্ফোরণ কান্ড, মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে বোমা বিস্ফোরণ ও সম্প্রতি তিন জেএমবি জঙ্গি গ্রেফতারের ঘটনা

স্বাভাবিকভাবেই বাংলায় জঙ্গিদের অবাধ পদচারণার ইঙ্গিত দিয়ে দিচ্ছে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা। সেখানে দাঁড়িয়ে বিজেপি এবার রাজ্যে জঙ্গিদের কার্যকলাপ নিয়ে মমতা সরকারের বিরুদ্ধে যে ময়দানে নামতে চলেছে তা দিলীপ ঘোষের ফেসবুক পোষ্টই হয়তো জানান দিয়ে দিলো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close