ইসলাম ধর্ম

ছয় মাসে কোরআনের হাফেজ হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী

করোনাকালীন অবসরকে কাজে লাগিয়ে মাত্র ছয় মাসে কোরআন হিফজ সম্পন্ন করেছেন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. জালাল উদ্দিন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আল কুরআন অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ

বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী
আল কুরআন অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম সিদ্দীকী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জালালের কোরআন হিফজের সংবাদ প্রকাশের পর বহু মানুষ

তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছে। মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে থিওলজি অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদের ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় ৫৫তম অবস্থানে ছিলেন করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস বন্ধ রয়েছে।

অখণ্ড এই অবসরকে কাজে লাগাতে কোরআন হিফজ শুরু করেন এবং মাত্র ছয় মাসে তিনি পুরো কোরআন হিফজ শেষ করেন। বর্তমানে তাঁর বয়স ২১ বছর। এত অল্প সময়ে কোরআন হিফজ করে জালাল উদ্দিন যেমন মেধার স্বাক্ষর রেখেছেন, তেমনি তিনি

প্রমাণ করেছেন, সদ্বিচ্ছা থাকলে যেকোনো বয়সে কোরআন হিফজ করা সম্ভব। ড. সাইফুল ইসলাম সিদ্দীকী বলেন, ‘করোনা মহামারির শুরুতে আমি ছাত্রদের পড়াশোনার প্রতি, যারা কোরআন পড়তে জানেন না তাঁদের কোরআন তিলাওয়াত শেখার এবং

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের একটি করে পাঠ্যগ্রন্থ রচনার আহ্বান জানাই। আমার আহ্বানে আর কেউ সাড়া দিয়েছেন কি না জানি না। কিন্তু আমার স্নেহাস্পদ ছাত্র জালাল উদ্দিন আমার আহ্বানে সাড়া দিয়ে আল-কোরআনের হাফেজ হয়েছেন।’ তিনি জালালের

জন্য দোয়া চেয়ে বলেন, ‘দেশবাসীর কাছে হাফেজ জালালের জন্য দোয়া চাচ্ছি। আল্লাহ তাআলা তাঁকে যেন প্রকৃত কোরআন গবেষক হিসেবে কবুল করে নেন। আমিন।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close