রাজনীতি

গত ৮ জুন থেকে নিখোঁজ আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহা’ম্ম’দ আদনানকে নিয়ে জাতীয় সংসদে কথা বলেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর র’শিদ। বৃহস্পতিবার

গত ৮ জুন থেকে নিখোঁজ আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহা’ম্ম’দ আদনানকে নিয়ে জাতীয় সংসদে কথা বলেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর র’শিদ। বৃহস্পতিবার
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সমালোচনা

করে হারুন বলেন, আজকে আমর’া অ’পহরণ-গু’ম- খু’নের কথা বলছি। এই কিছুদিন আগে একজন আলেম নিখোঁজ হয়েছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, খোঁজ নিচ্ছি। আজকে যদি তাকে ফিরিয়ে দিতে না পারেন এটা রাষ্ট্রের জন্য বড় ব্য’র্থতা হবে।

আমি বলব, আদনানকে অবশ্যই ফিরিয়ে দিতে হবে। তার পরিবারের আহাজারি আপনাকে শুনতে হবে। সংসদে সরকারি দলের এমপিরা বাস্তব আলোচনা করেন না দাবি করে বিএনপির এই সংসদ সদস্য বলেন, এখন রাষ্ট্র পরিচালনার কোনো দলিল

নেই। মাননীয় স্পিকার এক্সাম্পল দেখাতে পারব। সংবিধানে রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি বলা হচ্ছে- জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধ’র্মনিরপেক্ষতা। আমর’া কি আর সেই জায়গায় আছি? বাংলাদেশের সিংহভাগ মানুষ মুসলমান, ৯০ ভাগ মানুষ

ইসলাম ধ’র্মের অনুসারী। আমা’দের ধ’র্মীয় গ্রন্থ কোরআন। আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি, কোরআনে ধ’র্মনিরপেক্ষতার কোনো স্থান নেই। সুতরাং আমি মনে করি, সংবিধানে একটি বড় অস’ঙ্গতি রয়েছে। এ সময় তিনি খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবি জানিয়ে

বলেন, সংবিধানের দ্বিতীয় অনুচ্ছেদে মৌলিক অধিকারের যে অনুচ্ছেদগু’লো রয়েছে, সেখানে সভা-সমাবেশের কথা বলা হয়েছে। সেগু’লোর কি কোনো অস্তিত্ব আছে- এমন প্রশ্ন রেখে এমপি হারুন আরও বলেন, আজকে ভিন্নমত প্রকাশের কোনো

স্বাধীনতা আছে? ভিন্নমত প্রকাশ করতে পারছে? আরও একটি গু’রুত্বপূর্ণ অনুচ্ছেদ যেটি নিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে রাষ্ট্রকে সাংঘা’তিকভাবে নাড়া দিয়েছে। আজকে রাষ্ট্রপতি নির্বাহী বিভাগের ৪৯/এ অনুচ্ছেদটি রয়েছে সেখানে যে কোনো দ’ণ্ডিত আ’সামিকে রাষ্ট্রপতিকে মাফ করার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। অথচ আজকে

সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া রাজনৈতিক কারণে মাত্র দুই বছর সাজা দিয়ে তাকে আপনি (সরকার) চিকিৎসার সুযোগ দিচ্ছেন না। বাংলাদেশে আজকে দ’ণ্ডিত আ’সামিদেরকে আপনারা মাফ করে দিচ্ছেন। এটি ‘হতে পারে না

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close