আন্তর্জাতিক

ই;সরাইলকে শিক্ষা দিতে মু;সলিম দেশগুলোকে ঐ;ক্যবদ্ধ করছেন এরদোগান

ফি;লিস্তিনের ভূ;খণ্ড গাজা;য় টানা ক;য়েকদিনের ইসরাইলি আ;গ্রাসনে;র বি;রুদ্ধে মুসলিম দেশগুলোকে সংগঠিত করছেন তুরস্কের প্রে;সিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান। বৃহস্পতিবার তিনি আ;ফগান ও কি;রগিজ প্রেসিডেন্টর

সঙ্গে ফি;লিস্তিনে সম্প্রতি ইস;রাইলি হা;মলার বিষয়ে টেলি;ফোনে আলোচনা করেন। তুর্কি প্রেসিডেন্ট অফিসের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ইয়েনি শাফাক। কিরগিজ প্রেসিডেন্ট সদর জাপারোভের স;ঙ্গে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ ছাড়া দুই

দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্প;র্ক ও আ;ঞ্চলিক বিভিন্ন ই;স্যুতে কথা বলেন। এক বিবৃতিতে বলা হয়, এরদোগান বলেছেন আল-আকসা মস;জিদ, গা;জা ও ফি;লিস্তিনিদের হা;মলাকা;রী ইসরাইলকে উ;পযুক্ত শিক্ষা দিতে আন্ত;র্জাতিক অ;ঙ্গনে যে উদ্যোগ নিয়েছে

তার সঙ্গে তু;রস্কের পাশাপাশি কি;রগিজস্তানকে দেখ;তে চায়। এ ছাড়া আফ;গানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানির সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন এরদোগান। ফি;লি;স্তিনে চলমান ইসরাইলি হাম;লার বিষয়ে আলোচনা করেন। এ সময়

ইস;রাইলকে মোকাবেলা করতে আন্ত;র্জাতিকভাবে সম্মিলিত কাজ করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি আ;ফগানি;স্তানের যে কোনো জ;টিল পরি;স্থিতিতে তুরস্ক পাশে রয়েছে বলে আ;শ্বস্ত করেন।
এর আগে ইসরা;ইলি আ;গ্রাসনের বি;রুদ্ধে মালয়েশিয়ার সাবেক

প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের সঙ্গেও আলোচনা করেছেন এরদোগান। এর আগে বুধবার আলেজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনে আলোচনা করেছেন এরদোগান। এ সময় দ্বি;পক্ষীয় স;ম্পর্ক ও ই;সরাইলের সাম্প্রতিক আ;গ্রাসনের বিষ;য়টি

প্রা;ধান্য পায়। ইসরা;ইলের অ;বৈধ উচ্ছেদ অভি;যানের প্রতিবাদে গত ৯ মে পবিত্র শবে ক;দরের নামাজ শেষে আল-আ;কসা চত্বরে বি;ক্ষোভ শুরু করেন ফি;লিস্তিনিরা। এরপর ই;সরা;ইলের নিরা;পত্তা বাহিনী স্টান গ্রেনেড,

রা;বার বু;লেট ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়লে তা স;হিংসতায় রূপ নেয়। ইস;রাইলের নি;রাপত্তা বা;হিনীর হা;মলা এখন পর্যন্ত নি;হত হন ৮৩ জন ফি;লিস্তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close