রাজনীতি

মেহমান আসলে যদি ঘরের মানুষ র’ক্তা’ক্ত হয়, ঐ মেহ’মানকে না আ’নাই উত্তম

দেশের চলমান অ’স্থি’রতা নিয়ে জ’নপ্রি’য় ইস’লামিক স্ক’লার তার ভেরি’ফাই করা ফেজ’বুক একা’উন্টে একটি পোস্ট দেন। পাঠ’কদে’র জন্য তা হু’ব’হুব তুলে ধরা হলো। মেহ’মান আস’লে যদি ঘরের মা’নুষ র’ক্তা’ক্ত হয়,

তাহলে ঐ মেহমা’নকে স্বা’গত’ম না জা’নানো-ই বু’দ্ধি’মা’নের কাজ। ই’মা’নের দা’বিতে ধ’র্মী’য় অনু’ভু’তি থেকে যারা আজ জু’মার পর বি’ক্ষোভ প্রদ’র্শন করেছে, তারা কি সরকা’র প’ত’ন আন্দো’ল’নের ডা’কে জ’ড়ো হয়ে’ছিল? নাকি

এয়া’পো’র্ট ঘে’রাও’য়ের ঘো’ষণা দিয়ে’ছিল? না, এর কোনটাই না। এরা সেরেফ প্র’তিবাদ জা’নাতে আর ঘৃ’ণা প্র’কাশ করতে জ’ড়ো হয়েছিল। স্বাধীন দেশের জন’গণে’র কি এত’টু’কু বাক-স্বা’ধীনতা থা’কতে নেই? প্রতি’বাদ’কা’রী’রা তো এ’দেশে’রই

না’গ’রিক, তারা তো ভী’ন’দে’শী হা’না’দার নয়। নিজ দে’শের জন’গণে’র বি’রু’দ্ধে এ’ভাবে নি’র্ম’ম পে’শী’শ’ক্তি প্র’য়োগ— ক’তোটা যু’ক্তি’যুক্ত? দল মত নি’র্বি’শেষে এদে’শের আ’পাম’র জ’ন’গণ মনে প্রা’ণে বাংলাদেশকে ভা’লোবাসে।

মা’তৃ’ভূ’মির প্রতি মা’য়া, দ’রদ আর ভালোবাসা— কো’টা’রই কম’তি নেই কারো। কারণ বাংলাদেশ আমা’দের সবার, আমরা সবাই বাংলাদেশ। কিন্তু মু’ক্তি’যু’দ্ধ আর স্বা’ধীনতা নিয়ে অতি বাড়া’বা’ড়ির ফলে, ‘জন’মনে মা’রা’ত্ম’ক বি’তৃ’ষ্ণা ও

তি’ক্ত’তা তৈ’রী হচ্ছে। বারবার ইসলাম আর স্বাধী’নতা’কে, একটি’কে আরে’ক’টির বিপক্ষে দাঁড় করা’নো হচ্ছে, যা অ’ত্য’ন্ত গ’র্হি’ত কাজ। দয়া করে, জা’তি’কে বি’ভ’ক্ত করার এই নোং’রা’মো ব’ন্ধ করুন। এভাবে জাতীয় ঐক্য ন’ষ্ট করার মতো নি’র্বু’দ্ধি’তা’পূর্ণ কোন কাজ আর হতে পারেনা।

স্বাধীনতার ৫০ এ পা দিয়েছে বাংলাদেশ। আজ তো আমাদের সবাই মিলে আ’নন্দ উদ’যাপ’নের কথা ছিল। আজ কেন এই র’ক্তা’ক্ত দৃ’শ্য?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close